ব্রেকিং:
স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা মেনে রংপুর জেলায় প্রায় ছয় হাজার মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করবেন মুসল্লিরা। ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত মসজিদে মসজিদে এসব ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মহিউদ্দিন চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেন। ঈদের সকালে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ১০ মিনিটের ঝড়ের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে অর্ধশত ঘরবাড়ি। আহত হয়েছেন অন্তত পাঁচজন। পবিত্র ঈদুল ফিতর আজ
  • মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
আজ মুসলিমদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। লালমনিরহাটে ঈদের সকালে ১০ মিনিটের ঝড়ে লন্ডভন্ড ঘরবাড়ি রংপুরে ছয় হাজার মসজিদে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত ঘরে বসে পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ উপভোগ করুন: প্রধানমন্ত্রী জাতীয় কবি কাজী নজরুলের জন্মজয়ন্তী আজ
৮১

আজ শুভ বুদ্ধপূর্ণিমা     

প্রকাশিত: ৬ মে ২০২০  

বৌদ্ধ ধর্মের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শুভ বুদ্ধপূর্ণিমা আজ বুধবার। শতবর্ষের ইতিহাসে এবারই প্রথম ধর্মীয় পবিত্র এই দিনটি ভিন্নভাবে উদযাপন করা হবে। করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে এবার সবাই ঘরে বসেই প্রার্থনা করবেন। আর প্রতিবছরের মতো এবার আকাশে দেখা যাবে না ফানুস, বসবে না মিলনমেলা।
ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীন বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব জয়দত্ত বড়ুয়া বলেন, বুধবার বৌদ্ধদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শুভ বুদ্ধপূর্ণিমা। প্রতিবছরই উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়, প্রার্থনার আয়োজন থাকে। এই দিন ঘিরে প্রতিটি অঞ্চলে মানুষে মানুষে মিলনমেলার তৈরি হয়। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে দেশে এখন বিশেষ পরিস্থিতি চলছে। তাই আমরা এবার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সবাই ঘরে বসেই প্রার্থনা করব। যেসব ভিক্ষু বৌদ্ধ বিহারে অবস্থান করছেন, কেবল তারাই সেখানে প্রার্থনা করবেন। সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী বাকিরা যে যার বাসাতেই প্রার্থনা করবেন।

তিনি আরো বলেন, এই দিনটি ঘিরে অনেক আয়োজন হয়ে থাকে। ফানুস উড়ানো হয়, গ্রামীণ মেলাসহ অনেক আয়োজন থাকে। সবচেয়ে বড় মেলাটি বসে চট্টগ্রামের বৈদ্যপাড়া গ্রামে, যা বোধিদ্রুম মেলা নামে পরিচিত। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার এগুলোর কিছুই হচ্ছে না।

জানা গেছে, বুদ্ধপূর্ণিমা বা বৈশাখী পূর্ণিমা বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের পবিত্রতম উৎসব। এই পুণ্যোৎসব বৈশাখ মাসের পূর্ণিমা তিথিতে উদযাপিত হয়। বৈশাখী পূর্ণিমা দিনটি বুদ্ধের ত্রিস্মৃতি বিজড়িত। ৬২৩ অব্দের এই দিনে এই পবিত্র তিথিতে খ্রিস্টপূর্ব বুদ্ধ জন্মগ্রহণ করেছিলেন। বোধি বা সিদ্ধিলাভ করেছিলেন ৫৮৮ খ্রিস্টপূর্বাব্দের এই দিনে। আর ৫৪৩ খ্রিস্টপূর্বাব্দের এই দিনটিতে মহাপরিনির্বাণ লাভ করেছিলেন। সিদ্ধার্থের বুদ্ধত্ব লাভের মধ্য দিয়েই পৃথিবীতে বৌদ্ধ ধর্ম প্রবর্তিত হয়।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –