ব্রেকিং:
করোনায় আক্রান্ত হয়ে রংপুর বিভাগের কুড়িগ্রামে আরো একজনের মৃত্যু। রংপুর নগরীতে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে জীবাণুনাশক স্প্রে করছে সিটি কর্পোরেশন।
  • শুক্রবার   ১৬ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২ ১৪২৮

  • || ০৩ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
রংপুর নগরীর শাপলা চত্বর এলাকায় র‌্যাব-১৩ এর উদ্যোগে করোনা সংক্রমণ রোধে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চলছে। করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় সারাদেশে দ্বিতীয় দিনের মতো সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। প্রবাসী কর্মীদের জন্য বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করছে সরকার বসুন্ধরার হাসপাতাল ‘উধাও’ হয়নি, বণ্টন হয়েছে- স্বাস্থ্যের ডিজি রংপুরসহ দেশের তিন বিভাগ ও দুই জেলার একাধিক স্থানে কালবৈশাখী ঝড়ের আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সর্বাত্মক লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও রংপুরে রাস্তার মোড়ে মোড়ে বসেছে পুলিশের চেকপোস্ট।

আটোয়ারীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে একজনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৯  

পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে একজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বিকেলে উপজেলার আলোয়াখোয়া ইউনিয়নের মোলানী দুর্গা মন্দিরে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত যুবক বোদা উপজেলার সাকোয়া ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের হরিশ চন্দ্র বর্মনের পুত্র মানিক চন্দ্র বর্মন(৩০)। এসময় আরো এক যুবক বিদ্যুৎস্পৃষ্টে আহত হয়ে আটোয়ারী হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত যুবক একই উপজেলার সাকোয়া প্রধানপাড়া গ্রামের বীরেন চন্দ্র নাথের পুত্র প্রদীপ চন্দ্র নাথ(৩০)। জানাগেছে, মোলানী দুর্গা মন্দিরের কমিটি পূজা উপলক্ষে বোদা উপজেলার সাকোয়া হতে ডেকোরেশন ভাড়া করে। পূজা শেষে ডেকোরেশনের মালামাল গুটিয়ে নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ওই ডেকোরেশনের ইলেকট্রিশিয়ান মানিক চন্দ্র গেটের সাথে লাগানো বৈদ্যুতিক লাইন খুলতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়। মানিককে উদ্ধার করতে গিয়ে তার সহযোগি প্রদীপ বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে পড়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা তাদেরকে উদ্ধার করে আটোয়ারী হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মানিক চন্দ্রকে মৃত ঘোষণা করেন। মানিকের সহযোগি প্রদীপ চন্দ্র এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আটোয়ারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আটোয়ারী থানা পুলিশ ঘটণার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের পরিবারের লোকজন আসলে তাদের সিদ্ধান্তের পরিপেক্ষিতে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, ইলেকট্রিশিয়ানের অসাবধানতাই বিদ্যুৎস্পৃষ্টের প্রধান কারণ। 

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –