• মঙ্গলবার   ০২ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৭ ১৪২৭

  • || ১৮ রজব ১৪৪২

সর্বশেষ:
শুরু হলো অগ্নিঝরা মার্চ পৌরসভা নির্বাচন, পঞ্চম ধাপেও আ’লীগের জয়-জয়কার শিক্ষার প্রসারে বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৬ মেট্রোরেলে ঢাকার যানজট মুক্তির স্বপ্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ৬০ কর্মদিবস পর পরীক্ষা- শিক্ষামন্ত্রী

উৎসবমুখর শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দিয়েছে জনগণ- কাদের

প্রকাশিত: ১৭ জানুয়ারি ২০২১  

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পৌরসভা নির্বাচনে উৎসবমুখর শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ব্যাপক অংশগ্রহণে ভোট দিয়েছে সাধারণ মানুষ।

শনিবার বিকেলে তার সরকারি বাসভবন থেকে দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচন পরবর্তী ব্রিফিংয়ে তিনি একথা বলেন। সেতুমন্ত্রী বলেন, এরপরেও নির্বাচন নিয়ে যারা মিথ্যাচার করে, তার জবাব দিয়েছে জনগণ। 

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, এমন নির্বাচনই চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনেকেই স্বচ্ছতার জন্য এ নির্বাচনকে ‘বসুরহাট মডেল’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, বিএনপি ভোটে হারার আগেই হেরে বসে থাকে। তারা রাজপথ ভয় পায়, আন্দোলনেও ভয় তাদের। তারা নেতিবাচক রাজনীতির ঐতিহ্য ধরে রাখার অপচেষ্টা করে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কোথায় কে কী বললো, সেটা বিষয় নয়। প্রত্যেকের ব্যক্তিগত মতামত থাকতে পারে। আওয়ামী লীগ একটি সুসংগঠিত রাজনৈতিক দল। আমরা আদর্শের রাজনীতি করি। জনগণের চোখের ও মনের ভাষা বুঝেই রাজনীতি করে আওয়ামী লীগ। 

তিনি আরো বলেন, অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্র চর্চার সুযোগ রয়েছে আওয়ামী পরিবারে। আবার গঠনতন্ত্র বিরোধী কার্যকলাপের জন্য শাস্তির বিধানও যথাযথভাবে কার্যকর করা হয়, যা বিএনপির রাজনৈতিক চর্চায় নেই।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের ভোটের সংস্কৃতি নিয়ে বিএনপির মিথ্যাচারের জবাব দিয়েছেন নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার ভোটাররা। বিএনপির প্রার্থীও সেখানে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সেখানে অন্ধকারে ঢিল না ছুঁড়ে মির্জা ফখরুলকে নিজ দলের প্রার্থীর কথা অনুধাবন করার আহ্বান জানান সেতুমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনে জয়-পরাজয় থাকবে। তবুও স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহকে শক্তিশালী করার মাধ্যমে গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য সব প্রার্থীকে ধন্যবাদ জানান তিনি। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ভোটারদের ব্যাপক অংশগ্রহণ ও ভোটাধিকার প্রয়োগ ইভিএম এর ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তাই প্রমাণ করে। বিএনপি উদ্দেশ্যমূলক বিরোধিতা করলেও দেশের জণগণ অত্যন্ত সাবলীলভাবে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট দিয়েছে। 

সেতুমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারে জনগণ এরই মধ্যে অভ্যস্ত হয়ে উঠলেও বিএনপির মানসিকতা এখনো এনালগ রয়ে গেছে। তাই তারা এ পদ্ধতির বিরোধিতা করে। বিএনপি মুখে স্বচ্ছতার কথা বললেও প্রকৃতপক্ষে প্রযুক্তি বিমুখ এবং পিছিয়ে পড়া ধ্যানধারণা আঁকড়ে ধরে বসে থাকতে চায়।

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে গণমাধ্যম এবং রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক আগ্রহ ছিল উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সেখানেও অবাধ, শান্তিপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিএনপির প্রার্থীরা ভোটের পরিবেশ ও ভোটাধিকার প্রয়োগ নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করলেও তাদের কেন্দ্রীয় নেতারা শুধু সমালোচনার জন্য সমালোচনা করছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

তিনি বলেন, প্রথমবারের মতো বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে ইভিএম এ ভোট হয়েছে এবং ৬০ ভাগেরও বেশি ভোটার উপস্থিত ছিলেন। অথচ মির্জা ফখরুল আমাকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করে যেসব কথা বলেছেন, তার জবাব আমি না দিলেও বসুরহাট পৌরসভার ভোটাররা শান্তিপূর্ণ ও স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমে  এর জবাব দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, দেশে মোট পৌরসভার সংখ্যা ৩২৯টি। শনিবার দ্বিতীয় ধাপে ৬০টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –