বুধবার   ১১ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬   ১৩ রবিউস সানি ১৪৪১

কিশোরীগঞ্জে ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করায় বখাটের ছয় মাসের কারাদন্ড

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০১৯  

কোচিং শেষে বাড়ি ফেরার সময় দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে রাস্তায় উত্ত্যক্ত করার অপরাধে স্বপন রায়(২০) নামে এক বখাটেকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদ। আজ সোমবার (২ ডিসেম্বর) তাকে নীলফামারী জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়। 

কিশোরগঞ্জ থানা পুলিশ জানায়, রবিবার (১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের মেলাবর গ্রামের ভরত চন্দ্র রায়ের মেয়ে ও মেলাবর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী কোচিং শেষে বাড়ি ফিরছিল। এসময় বড়ভিটা ইউনিয়নের দামালের ঘাট পাকা রাস্তার উপরে জলঢাকা উপজেলার গাবরোল সাধুপাড়া টসরার ডাংগা গ্রামের নির্মল রায়ের ছেলে ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে। মেয়েটির চিৎকারে এলাকাবাসী নির্মল রায়কে আটক বড়ভিটা ইউনিয়ন পরিষদের নিয়ে আসে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক আবুল কালাম আজাদ ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মলকে ছয়মাসের কারাদণ্ড প্রদান করে। 

উল্লেখ্য যে, চলতি বছরের গত ১৯ নভেম্বর কিশোরীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের কলকুঠি পারার আবুল কালামের মেয়ে এবং জেএসসি পরীক্ষার্থী কারিমা আক্তার কারনিজ বখাটের উৎপাত সইতে না পেরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। 

কিশোরীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) হারুন অর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –
এই বিভাগের আরো খবর