ব্রেকিং:
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৩৬১ জনে। শনিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৩৬১ জনে। শনিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
  • শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১১ ১৪২৭

  • || ০৮ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
লালমনিরহাটে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু বঙ্গবন্ধুর হাত ধরে এসেছে জাতিসংঘের সদস্যপদ- প্রধানমন্ত্রী বিদেশে বিনিয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন রপ্তানিকারকরা দিনাজপুরে আরো ১৮ জন করোনায় আক্রান্ত রংপুরে মৃদুলের বাড়িটি এখন ‘মাছের বাড়ি’
১৩৫

কোরিয়া থেকে কেনা হচ্ছে ১৫০টি মিটারগেজ কোচ

প্রকাশিত: ৩০ জুলাই ২০২০  

দক্ষিণ কোরিয়া থেকে ১৫০টি যাত্রীবাহী মিটারগেজ কোচ আনতে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। বুধবার এ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয় বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে রেলপথ মন্ত্রণালয়।

এতে বলা হয়, রেলভবনের সম্মেলন কক্ষে রেলপথমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজনের উপস্থিতিতে ‘বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য ২০টি মিটারগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক লোকোমোটিভ, ১৫০টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী ক্যারেজ সংগ্রহ প্রকল্প’র আওতায় ১৫০টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী ক্যারেজ সংগ্রহ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তিতে বাংলাদেশ রেলওয়ের পক্ষে স্বাক্ষর করেন প্রকল্প পরিচালক মো. হাসান মনসুর ও দক্ষিণ কোরিয়ার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সুংশিন আরএসটি-পসকো ইন্টারন্যাশনালের কান্ট্রি ম্যানেজার।  

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, ১৫০টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী ক্যারেজের চুক্তি মূল্য ৬৫৮ কোটি ৮১ লাখ ৩০ হাজার ৬৩ দশমিক ৯০ টাকা। প্রকল্পটি দক্ষিণ কোরিয়ার এক্সিম ব্যাংকের অর্থায়নে বাস্তবায়িত হচ্ছে। চুক্তি স্বাক্ষরের দিন থেকে ১৮ থেকে ৩০ মাসের মধ্যে কোচগুলোর সরবরাহ পাওয়া যাবে।  

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া আমাদের গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন সহযোগী দেশ। রেলওয়েসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা সহযোগিতা করছে। এ কোচগুলো রেলবহরে যুক্ত হলে বেশি পরিমাণে সেবা দেয়া সম্ভব হবে। যাত্রীরা এর সুফল ভোগ করবেন।  

মন্ত্রী জানান, এসব যাত্রীবাহী ক্যারেজের প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, এগুলোর বডি স্টেইনলেস স্টিলের। থাকবে বায়ো-টয়লেট, স্বয়ংক্রিয় এয়ার ব্রেক ব্যবস্থা, স্বয়ংক্রিয় স্লাইডিং ডোরসহ আধুনিক সুবিধা। প্রত্যেক কোচে থাকবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত স্লিপিং বার্থ ৩০টি, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত চেয়ার কোচ ৩৮টি, শোভন চেয়ার মোট ৪৪টি, খাবার গাড়িসহ শোভন চেয়ার কোচ ১৬টি, পাওয়ার গাড়িসহ শোভন চেয়ারকোচ ১২টি, রাষ্ট্রীয় পরিদর্শনের জন্য বুলেটপ্রুফ গাড়ি ১টি, খাবার গাড়ি ১টি, পাওয়ার গাড়ি ১টি ও পরিদর্শন কার ১টি।  

এসময় উপস্থিত ছিলেন- রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামানসহ সংশ্লিষ্টরা।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর