• রোববার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১১ ১৪২৭

  • || ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
বিশ্বে জাহাজ শিল্পে জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশ: নৌ প্রতিমন্ত্রী পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত বিশ্বের প্রতি বাংলাদেশের অটল প্রতিশ্রুতি দিনাজপুরে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার চাকরিচ্যুত প্রবাসীদের পুনর্বাসনের পরিকল্পনা করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী অর্থবিত্ত কখনো রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না: তথ্যমন্ত্রী

গাইবান্ধায় ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০২০  

গাইবান্ধায় ন্যাশনাল সার্ভিসের কর্মীকে একাধিকবার ধর্ষণের মামলায় এক ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের পর ধারণকৃত ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

লক্ষিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বাদলকে মঙ্গলবার রাতে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। 

পুলিশ ও নির্যাতিতা গৃহবধূর অভিযোগ, চলতি বছরের ১৩ মার্চ ন্যাশনাল সার্ভিসের প্রত্যয়ন আনতে গেলে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তার কক্ষে ডেকে নিয়ে একই ইউনিয়নের বাসিন্দা ওই গৃহবধূকে ধর্ষণের পর ভিডিওচিত্র ধারণ করেন পরিষদের চেয়ারম্যান বাদল।

পরবর্তীতে ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে আরো একাধিকবার বিভিন্ন জায়গায় তাকে ধর্ষণ করেন। সবশেষ গত ১১ নভেম্বর নির্যাতিতার বাড়িতে তার স্বামীর অনুপস্থিতে গিয়ে আবারো ধর্ষণের সময় আশপাশের লোকজন টের পেলে চেয়ারম্যান বাদল পালিয়ে যান। পরবর্তীতে নির্যাতিতা নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেন। এরআগে ২০১৭ সালে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান ও একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান বাদল। 

গাইবান্ধা সদর থানার ওসি তদন্ত মজিবর রহমান বলেন, বুধবার ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে বাকি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –