ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মারা গেলেন ২ হাজার ৩৫২ জন। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬৬৬ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯৫ জন।
  • সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
মুজিববর্ষ উপলক্ষে এক কোটি গাছ রোপণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী করোনার ভুয়া রিপোর্টের ঘটনায় ডা. সাবরিনা গ্রেফতার সরকারি উদ্যোগে সারাদেশে কোরবানির পশুর ডিজিটাল হাট বর্তমান সরকার কৃষি খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে- কৃষিমন্ত্রী ই-নথি ব্যবস্থাপনায় এবারো শীর্ষে শিল্প মন্ত্রণালয়
৬৫

ট্রেনে জন্ম নেওয়া শিশু `লালমনি`র বাড়িতে ডিসি

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০১৯  

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা আন্তনগর ‘লালমনি এক্সপ্রেস’ ট্রেনে জন্ম নেওয়া ’লালমনি’কে দেখতে জেলা প্রশাসক আবু জাফর। এসময় খাবারসহ আর্থিক সহায়তা প্রদান করে।

সোমবার (২ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার চলবলা ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামের বাড়িতে যান তিনি। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল হাসান,উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) ফেরদৌস আহমেদ সঙ্গে ছিলেন।

অভাবের তাড়নায় লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার চলবলা ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামের ছকমাল মিয়া-স্ত্রী নবিয়া বেগমকে নিয়ে প্রায় ২ বছর আগে ঢাকায় যান। স্ত্রী নবিয়া নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করেন। স্বামী দিনমজুরের কাজ পেয়ে একইসঙ্গে ভাড়া বাড়িতে থাকেন। ঢাকার ক্লিনিকে সন্তানসম্ভবা স্ত্রী’র অপারেশন করার মতো স্বামীর সামর্থ্য নেই। তাই সিদ্ধান্ত হয় গ্রামে গিয়ে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করবেন স্ত্রীকে।

রোববার স্বামী-স্ত্রী দুজনই টিকিট কেটে লালমনিরহাটগামী আন্তনগর ‘লালমনি এক্সপ্রেস’ ট্রেনে ওঠেন। ট্রেনেই নবিয়ার প্রসব ব্যাথা ওঠে। কান্নাকাটি করতে থাকেন, তখন ট্রেন পাবনার ঈশ্বরদী এলাকায়। গভীর রাতে আশপাশে ট্রেন থামার মতো কোনো রেলস্টেশন ছিল না। এক পর্যায়ে ভোর ৪টার দিকে একটি ফুটফুটে শিশুর জন্ম হয়।

সোমবার সকালে বগুড়া স্টেশনে আন্তনগর ‘লালমনি এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি পৌঁছায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় সন্তানসহ প্রসূতিকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। টানা ৫ দিন চিকিৎসার পর শনিবার (৩০ নভেম্বর) সকালে গ্রামের বাড়িতে এলে বাড়ি লোকজন প্রসূতি মা ও সন্তানকে বরণ করে নেওয়া হয়। সেখানে শিশুটির নাম রাখা হয় ইব্রাহীম হোসেন লালমনি।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, জেলার ও ট্রেনের প্রতি ভালোবাসা দেখে আশ্চর্য হয়েছি। জেলার সাথে নাম রেখেছে ‘লালমনি’। যার কারণে পরিবারের প্রতি কৃতজ্ঞ আমরা। শিশুটির পরিবারকে দেখে শুকনো খাবারসহ ১০ হাজার টাকা নগদ প্রদান সহয়তা করা হয়েছে।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর