ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মারা গেলেন ২ হাজার ৩৫২ জন। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬৬৬ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯৫ জন।
  • সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
মুজিববর্ষ উপলক্ষে এক কোটি গাছ রোপণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী করোনার ভুয়া রিপোর্টের ঘটনায় ডা. সাবরিনা গ্রেফতার সরকারি উদ্যোগে সারাদেশে কোরবানির পশুর ডিজিটাল হাট বর্তমান সরকার কৃষি খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে- কৃষিমন্ত্রী ই-নথি ব্যবস্থাপনায় এবারো শীর্ষে শিল্প মন্ত্রণালয়
৪৫৪

দিনাজপুরে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা চীন ফেরত শিক্ষার্থী সুস্থ

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২০  

দিনাজপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা চীন ফেরত শিক্ষার্থী ও তার বাবা সুস্থ ও স্বাভাবিক আছেন বলে জেলা সিভিল সার্জন জানিয়েছেন। নতুনভাবে করোনা সন্দেহে কাউকে এখন পর্যন্ত সনাক্ত করা হয়নি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন মো. আব্দুল কুদ্দুস। 

সিভিল সার্জন জানান, গত বুধবার বিকেলে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে ওই শিক্ষার্থীসহ পরিবারের তিন জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা আইইডিসিআর এ পাঠানো হয়েছে। এখনো রিপোর্ট হাতে এসে পৌঁছেনি। রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত পরিবারের সবার জন্য খাবার বাসন থেকে শুরু করে সবকিছু পৃথকভাবে ব্যবহারের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। দিনে ২-৩ বার নিজেই খোঁজ খবর রাখছেন বলেও জানান তিনি।

করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ওই শিক্ষার্থী দিনাজপুরের উপশহর এলাকার বাসিন্দা। সে চীনের জেজিয়াং শহরের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত।

এর আগে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ওই যুবক চীনের জেজিয়াং থেকে মালয়েশিয়া হয়ে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামেন। সেখান থেকে ঢাকায় ভাইয়ের মেসে একদিন অবস্থান করেন। পরের দিন ঢাকা থেকে নিজ জেলা দিনাজপুর শহরে আসেন। সুস্থ অবস্থায় ঢাকা থেকে বাড়িতে ফিরলেও পরবর্তীতে ১০ দিনের মাথায় হালকা জ্বর, সর্দি ও কাশি অনুভব করেন। ঠিক তারপরের দিন ওই যুবকের বাবাও সর্দি কাশি অনুভব করেন।

বিষয়টি জানতে পেরে মঙ্গলবার বিকেলে ওই যুবকের বাড়িতে যান সিভিল সার্জন। তাৎক্ষণিকভাবে রংপুর অঞ্চলের দায়িত্বে থাকা আইইডিসিআর এর প্রতিনিধিকে জানিয়ে বুধবার যুবকসহ তাদের পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা আইইডিসিআর এ পাঠানো হয়েছে। 

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় গঠিত ১৩ সদস্যের কমিটির সভাপতি দিনাজপুরের ডিসি মো. মাহমুদুল আলম  বলেন, এরইমধ্যে জেলার সব উপজেলায় সাম্প্রতিক সময়ে বিদেশ থেকে আসা লোকজনের তালিকা প্রস্তুতির কাজ চলছে। 

কাহারোল উপজেলা নবনির্মিত ২৫ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালসহ পুরো জেলায় সব চিকিৎসাকেন্দ্রে মোট ১০৫ শয্যা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রতিটি হাসপাতালে ও স্থলবন্দরে চিকিৎসকদের নিয়ে টিম গঠন করে দেয়া হয়েছে। বিভিন্নভাবে সচেতনতামূলক কর্মসূচি গ্রহণ করা হচ্ছে  

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর