ব্রেকিং:
স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা মেনে রংপুর জেলায় প্রায় ছয় হাজার মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করবেন মুসল্লিরা। ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত মসজিদে মসজিদে এসব ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মহিউদ্দিন চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেন। ঈদের সকালে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ১০ মিনিটের ঝড়ের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে অর্ধশত ঘরবাড়ি। আহত হয়েছেন অন্তত পাঁচজন। পবিত্র ঈদুল ফিতর আজ
  • মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
আজ মুসলিমদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। লালমনিরহাটে ঈদের সকালে ১০ মিনিটের ঝড়ে লন্ডভন্ড ঘরবাড়ি রংপুরে ছয় হাজার মসজিদে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত ঘরে বসে পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ উপভোগ করুন: প্রধানমন্ত্রী জাতীয় কবি কাজী নজরুলের জন্মজয়ন্তী আজ
১৮

নীলফামারীতে আসাদুজ্জামান নূরের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত: ৪ এপ্রিল ২০২০  

“করোনা ভাইরাসের আতঙ্কিত নয়, সচেতনতায় মুক্তি” এই শ্লোগান নিয়ে সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী নীলফামারী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূরের ব্যক্তিগত উদ্যোগে ১ম পর্যয়ে গতদরিদ্র ও দিনমজুরদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়েছে। 

আজ শনিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ সড়কে উয়ঙ্কুর বিদ্যা পীঠ চত্বর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, আধা কেজি মসুর ডাল ও একটি সাবান।

বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন নীলফামারী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ মমতাজুল হক, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুজার রহমান, সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ রহমান, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মসফিকুর ইসলাম রিন্টু, সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন মুন, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিদ মাহমুদ, জেলা মহিলা লীগের সাধারন সম্পাদক ফরিদা খানম, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রত্না সিনহা, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ সরকার প্রমুখ।

সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ রহমান জানান, নীলফামারী আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূরের ব্যক্তিগত উদ্যোগে হতদরিদ্র ও দিনমজুরদের মাঝে নীলফামারী পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে দুই হাজার ও সদরের ১৫টি ইউনিয়নের ১৩৫টি ওয়ার্ডের ২হাজার ৭০০ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়েছে। সামাজিক দূরত্বতা বজায় রেখে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ওই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। 

তিনি জানান, ইতোমধ্যে আমরা এক লাখ লিফলেট, তিন হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ২ হাজার মাস্ক বিতরণ করেছি। এর পাশাপাশি প্রতিদিন মাইকিং করা হচ্ছে। এমপি আসাদুজ্জামান নূরের নির্দেশনায় ১০০জন স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত করা হয়েছে। যদি পরিস্থিতি খারাপ হয় এবং করোনা আক্রান্ত হয়ে কোন ব্যক্তি বা পরিবার করুণ অবস্থায় পড়ে তাহলে এই স্বেচ্ছাসেবকরা তাদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌছিয়ে দিবে।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর