ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মারা গেলেন ২ হাজার ৩৫২ জন। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬৬৬ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯৫ জন।
  • সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
মুজিববর্ষ উপলক্ষে এক কোটি গাছ রোপণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী করোনার ভুয়া রিপোর্টের ঘটনায় ডা. সাবরিনা গ্রেফতার সরকারি উদ্যোগে সারাদেশে কোরবানির পশুর ডিজিটাল হাট বর্তমান সরকার কৃষি খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে- কৃষিমন্ত্রী ই-নথি ব্যবস্থাপনায় এবারো শীর্ষে শিল্প মন্ত্রণালয়
২৩১

পঞ্চগড়ে ধানের বাম্পার ফলন, ধান কাটা ও মাড়াই কাজে ব্যস্ত কৃষকরা

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০১৯  

পঞ্চগড়ে ধান কাটা ও মাড়াই করার কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। অনেকে আবার উৎপাদিত ধান কাটা ও মাড়াই শেষে বিক্রির জন্য ছুটে চলা শুরু করেছেন বিভিন্ন হাট-বাজারে। ফলন ভালো হলেও ন্যায্য দাম পাওয়া নিয়ে আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।

রোববার (২৪ নভেম্বর) জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বিগত বছরের তুলনায় চলতি মৌসুমে আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। জেলার বিভিন্ন এলাকায় দেখা যায় সোনালী ধানের ভরা মাঠ। কৃষকরা যেনো দম ফেলার সময়টুকুও পাচ্ছে না।

জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার লক্ষীর হাট এলাকার কৃষক টিটুল রায় বলেন, 'আমি এ বছর ৪ বিঘা জমিতে আমন ধান রোপণ করেছি ফলনও ভালো হয়েছে কিন্তু ধানের ন্যায্য দাম নিয়ে খুব চিন্তিত রয়েছি।'

একই কথা জানালেন জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার দেবনগড় এলাকার কৃষক সাদেকুল ইসলাম। তিনি বলেন, 'স্থানীয় একটি এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে জমি বর্গা নিয়ে ধান লাগিয়েছি এবং ফলনও ভালো পেয়েছি। এখন ধানের দামের উপর নির্ভর করছে লাভ-লোকসান।'

এদিকে পঞ্চগড় জেলার জগদল বাজারের ধান ব্যবসায়ী বশির আলম জানান, বাজারে ইতিমধ্যে নতুন ধান উঠতে শুরু করেছে তবে ধানের কোয়ালিটি দেখে দাম দেওয়া হচ্ছে। বাজারে প্রতি মণ ধান সর্বনিম্ন ৫৩০ থেকে ৬০০ টাকা দরে ক্রয় করা হচ্ছে।'

পঞ্চগড় জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক আবু হানিফ জানান, 'বিগত বছরের চেয়ে চলতি মৌসুমে পঞ্চগড়ের ৫টি উপজেলায় আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে এবং এক্ষেত্রে কৃষকদের কৃষি অফিস থেকে পরামর্শ ও সেবাও প্রদান করা হয়েছে।'

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –
পঞ্চগড় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর