ব্রেকিং:
করোনায় আক্রান্ত হয়ে রংপুর বিভাগের কুড়িগ্রামে আরো একজনের মৃত্যু। রংপুর নগরীতে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে জীবাণুনাশক স্প্রে করছে সিটি কর্পোরেশন।
  • শুক্রবার   ১৬ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২ ১৪২৮

  • || ০৩ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
রংপুর নগরীর শাপলা চত্বর এলাকায় র‌্যাব-১৩ এর উদ্যোগে করোনা সংক্রমণ রোধে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চলছে। করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় সারাদেশে দ্বিতীয় দিনের মতো সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। প্রবাসী কর্মীদের জন্য বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করছে সরকার বসুন্ধরার হাসপাতাল ‘উধাও’ হয়নি, বণ্টন হয়েছে- স্বাস্থ্যের ডিজি রংপুরসহ দেশের তিন বিভাগ ও দুই জেলার একাধিক স্থানে কালবৈশাখী ঝড়ের আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সর্বাত্মক লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও রংপুরে রাস্তার মোড়ে মোড়ে বসেছে পুলিশের চেকপোস্ট।

বরযাত্রার আগেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন বর

প্রকাশিত: ১৫ মার্চ ২০২১  

রাত ১২টায় কনের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কথা ছিল। সব প্রস্তুতিও প্রায় শেষ। বাড়িভরা মেহমান ও আত্মীয়-স্বজন। চলছে আনন্দ-উল্লাস। মুহূর্তেই সব আনন্দ শোকে পরিণত হলো। বরযাত্রার আগেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন বর সৌরভ চন্দ্র রায়।
শনিবার রাতে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার সুন্দরদিঘী ইউনিয়নের সর্দারপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সৌরভ একই এলাকার ফটেকশ্বর রায়ের ছেলে।

স্বজনরা জানান, শনিবার রাতে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার শুকানপুকুরী এলাকায় এক মেয়ের সঙ্গে পারিবারিকভাবে সৌরভের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। আয়োজন ছিল সব ঠিকঠাক। বিয়েবাড়িতে যেখানে জেনারেটর বসানো হয়েছে সেখানে কিছুটা অন্ধকার ছিল। সৌরভ নিজেই সেখানে একটি বাতি লাগাতে বিদ্যুতের সংযোগ দিতে যান। এতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন তিনি। কিছুক্ষণ পর নিথর দেহটি মাটিতে পড়ে যায়।

এ সময় পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এতে মুহূর্তেই বিয়েবাড়িতে শোকের ছায়া নেমে আসে। তিন ভাইয়ের মধ্যে সৌরভ দ্বিতীয়। তিনি কালীগঞ্জ বাজারের একটি ওয়ার্কশপে কাজ করতেন। 

দেবীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) বজলুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। 

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –