• রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২১ ১৪২৬

  • || ১১ শা'বান ১৪৪১

সর্বশেষ:
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন চাল নিয়ে কর্মহীন মানুষের বাড়ি বাড়ি ঘুরছেন রসিক মেয়র করোনার রোধে রংপুরে হাত ধোয়া শেখাচ্ছেন সেনা সদস্যরা করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর বিশ্বের ফুটবল বদলে যাবে বলে মনে করেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো করোনাভাইরাসে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে ২০২০ সালের হজ্জ মৌসুমে বিভিন্ন পদে মক্কা, মদিনা এবং জেদ্দার জন্য স্থানীয়ভাবে অস্থায়ী হজকর্মী নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করেছে বাংলাদেশ হজ অফিস জেদ্দা
১৪

বাসায় বসে অফিসের কাজ: যা খাওয়া জরুরি

প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২০  

ভয়াবহ পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে পুরো বিশ্ব। এর কারণ করোনাভাইরাস! যা দিন দিন ছড়িয়ে পড়ছে সারা বিশ্বেই। প্রতিনিয়ত বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। সবচেয়ে ভয়ের কথা হচ্ছে, এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসের কোনো স্থায়ী ওষুধ ও টিকা আবিষ্কৃত হয়নি।

যেহেতু করোনা একটি ছোঁয়াচে রোগ তাই সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এই মুহূর্তে জনসমাগম এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। তাইতো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে অনেক প্রতিষ্ঠানও। তবে সবাই ঘরে বসে অফিসের কাজ করছেন। তাই তাদের জন্য চাই এমন কিছু খাবার যা তাদের দেহে শক্তি বাড়াতে সাহায্য করবে। তাছাড়া আলসেমি কাটাতেও সহায়তা করবে।

তাছাড়া বাসায় বসে থাকাই কেবল এই রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে পারে। আর তাই বাসায় বসে কাজের সময় কিছু পুষ্টিকর খাবার খেতে পারেন। চলুন জেনে নেয়া যাক পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে কাজের ফাঁকে পুষ্টিকর খাবার গ্রহণের কয়েকটি সহজ পথ সম্পর্কে- 

> শুকনো ফল, বাদাম, কিশমিশ, কাঠবাদাম, আখরোট ও কাজুবাদাম জাতীয় খাবার খেতে পারেন। বাদাম শরীরের নানা উপকার সাধনের সঙ্গে ওজন কমাতে সাহায্য করে। 

> উচ্চ প্রোটিন, আঁশ, কয়েকটি ভিটামিন ও খনিজসমৃদ্ধ মটর ভাজা খেতে পারেন কাজের ফাঁকে। আধা কাপ মটরে আছে ৫ গ্রাম আঁশ ও ১০ গ্রাম প্রোটিন।

> সুষম খাবারের মধ্যে রয়েছে ওটস। স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভাস গড়ে তোলার জন্য ওটস অনেক উপকারী। বাসায় বসে কাজের ক্ষেত্রে এই শস্য আপনাকে সুস্থ রাখতে ও ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে বিশাল ভূমিকা পালন করবে। 

> বাসায় বসে থাকতে থাকতে মন খারাপ হতেই পারে। সে মুহূর্তে তাৎক্ষণিকভাবে মন ভালো করার জন্য খেতে পারেন ডার্ক চকোলেট। এটি চর্বিযুক্ত দুধ ও কোকোয়া সমৃদ্ধ। 

করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি রোধে যেখানে সেখানে কফ ও থুতু ফেলা থেকে বিরত থাকুন। হাত দিয়ে নাক, মুখ ও চোখ স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন। এছাড়া ঘন ঘন দুই হাত সাবান পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে পরিষ্কার করুন।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –
লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর