ব্রেকিং:
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৬ জন মারা গেছেন। একই সময়ে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৯০৮ জন
  • রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৪ ১৪২৭

  • || ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
১৫ লাখ কৃষককে বিনামূল্যে হাইব্রিড বীজ দেবে সরকার দিনাজপুরে ঘন কুয়াশায় জেঁকে বসেছে শীত করোনার ভ্যাকসিন মানুষ সহজেই পাবে- সেতুমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ষড়যন্ত্রের জবাব দেবে জনগণ- মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী পেঁয়াজ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে রোডম্যাপ সরকারের

মুজিববর্ষ উপলক্ষে দরিদ্র বালিকাদের সাইকেল দিয়ে কন্যারত্ন ঘোষণা   

প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০২০  

মুজিববর্ষ উপলক্ষে পঞ্চগড়ের দরিদ্র ও মেধাবী কিশোরীদের সাইকেল উপহার দিয়ে কন্যারত্ন ঘোষণা করা হয়েছে।  
সম্প্রতি জুম বৈঠকের মাধ্যমে কন্যারত্নদের সঙ্গে আলোচনায় অংশ নেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন ও রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। 

জুম বৈঠকের মাধ্যমে কিশোরীদের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে আত্মবিশ্বাস। তারা নিজেরাই এখন বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ করছে, স্বাস্থ্য সচেতনতার বার্তা দিচ্ছে পরিবারে, নিরাপদ খাদ্য গ্রহণ ও প্রজননস্বাস্থ্য নিয়ে নিজেরা সচেতন হওয়ার পাশাপাশি আশপাশের নারীদেরও সচেতন করছে।  

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১ হাজার ৭২০ জন কিশোরীকে সাইকেল উপহার দিয়ে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। তাদের ঘোষণা করা হয়েছে কন্যারত্ন, জেলার অ্যাম্বাসাডর।  ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রত্যাবর্তন দিবসে এই প্রকল্প চালু করেন জেলা প্রশাসন। 

আমাদের কন্যারত্ন আমাদের অ্যাম্বাসেডর, সুস্থ কিশোরী নিরাপদ আগামী’ প্রতিপাদ্য নিয়ে জুম অ্যাপসের মাধ্যমে ওই সাইকেল বালিকাদের স্বাস্থ্য সচেতন করা হচ্ছে।  

জানা গেছে, মুজিববর্ষ উপলক্ষে নারীর ক্ষমতায়ন এবং শিক্ষাসহায়ক উপকরণ হিসেবে স্কুলগামী দরিদ্র ও মেধাবী কিশোরীদের বাইসাইকেল উপহার দেয়ার জন্য চেয়ারম্যানদের অনুরোধ জানান পঞ্চগড়ের ডিসি সাবিনা ইয়াসমিন। 

সদর উপজেলার অমরখানা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান নুরু জানান, ডিসির আহ্বানে সাড়া দিয়ে জেলার ৪৩টি ইউপিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের এলজিএসপি প্রকল্পের বরাদ্দের টাকা থেকে প্রতিটি ইউপির ৪০ জন কিশোরীকে বাইসাইকেল উপহার দেয়া হয়। 

অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী রিয়া বলেন, সাইকেল পেয়ে যাতায়াত খরচ যেমন কমেছে, তেমনি জুম উঠান-বৈঠকের মাধ্যমে অনেক কিছু শিখছি। আগে প্রজনন বিষয়ে কিছুই জানতাম না। মেয়েদের স্বাস্থ্য বিষয়ে, বিশেষ করে মিনিস্ট্রেশন আমরা গোপন করে রাখতাম। এখন গোপন করি না। শেয়ার করি। খাদ্য সচেতনও ছিলাম না। স্কুলে টয়লেটে যেতে লজ্জা পেতাম। জুম মিটিংয়ে সফল নারীরা সবকিছু ভেঙে দিয়েছেন। আমার এখন আত্মবিশ্বাস বেড়েছে।

স্থানীয় অভিভাবক, সচেতন নাগরিকসহ সর্বস্তরে জেলা প্রশাসনের এ উদ্যোগ প্রশংসিত হচ্ছে। করোনা সংকট কেটে গেলে এই কিশোরীদের সরাসরি বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। 

তেঁতুলিয়া উপজেলার মমিনপাড়া গ্রামের আবদুল খালেক বলেন, সত্যি অবাক হয়েছি। আমার মেয়ে এখন আমাদের পরিবাবের সবাইকে স্বাস্থ্য সচেতনতার কথা বলছে। বাল্যবিয়ের কুফল নিয়ে আলোচনা করছে। আমার মেয়েকে কন্যারত্ন ঘোষণা দেয়ায় অনেক খুশি হয়েছি।

ডিসি সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, প্রকল্পটির মাধ্যমে ১ হাজার ৭০০ কিশোরী প্রজননস্বাস্থ্য ও বাল্যবিয়ে সম্পর্কে সচেতন হবে। সমগ্র কর্মসূচি ফেসবুক লাইভ, লোকাল সিটি ক্যাবলের মাধ্যমে টেলিভিশনে প্রচার করা হচ্ছে। ফলে ওই কিশোরীদের পাশাপাশি তাদের অভিভাবক এবং এলাকাবাসীও প্রজননস্বাস্থ্য ও বাল্যবিয়ে সম্পর্কে সচেতন হবেন।

স্থানীয়রা জানান, এটা জেলা প্রশাসনের সফল উদ্যোগগুলোর মধ্যে অন্যতম। বর্তমানে সাইকেল উপহার পাওয়া কিশোরীরা বাল্যবিয়ে এবং প্রজননস্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনতা ছড়িয়ে দিচ্ছে। এরফলে, একদিকে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টি হচ্ছে, নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে। 

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –