• সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩ ১৪৩১

  • || ০৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

অবসরের ঘোষণা দিলেন সুনীল ছেত্রি

প্রকাশিত: ১৬ মে ২০২৪  

ভারতীয় ফুটবলে একটি যুগের অবসান। অবসর নিতে চলেছেন সুনীল ছেত্রি। আগামী ৬ জুন কলকাতার যুবভারতী স্টেডিয়ামে কুয়েতের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচ খেলবে ভারত। সেই ম্যাচই দেশের জার্সি গায়ে সুনীলের শেষ ম্যাচ।

বৃহস্পতিবার একটি ভিডিও বার্তায় এ কথা জানিয়েছেন তিনি। ভিডিও বার্তায় সুনীল বলেন, একটা দিন জীবনে কখনো ভুলতে পারব না। যেদিন দেশের জার্সি গায়ে প্রথমবার ভারতের হয়ে খেলতে নেমেছিলাম। অবিশ্বাস্য অনুভূতি।

এরপর তিনি বলেন, আগেরদিন সকালে জাতীয় দলে আমার প্রথম কোচ সুখী স্যার (সুখবিন্দর সিংহ) এসে আমাকে জানিয়েছিলেন, প্রথম একাদশে আমি রয়েছি। বলে বোঝাতে পারব না সেই অনুভূতি কেমন ছিল।

সুনীলের সংযোজন, জার্সি প্রথম হাতে পাওয়ার পর তাতে কিছুটা সুগন্ধি ছড়িয়ে দিয়েছিলাম। জানি না কেন। সেদিন যা যা হয়েছিল, সকাল থেকে মধ্যাহ্নভোজের টেবিলের কথাবার্তা, ম্যাচে আমার মাঠে নামা এবং অভিষেক ম্যাচেই গোল, তার পরে ৮০ মিনিটে গোল হজম করা, জাতীয় দলে আমার যাত্রা শুরুর প্রথম দিনের এই ঘটনাগুলোর কথা কোনো দিন ভুলতে পারব না।

২০০৫-এর ১২ জুন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে প্রথম ম্যাচ খেলেন সুনীল। অভিষেক ম্যাচেই গোল করেন। সুনীলের প্রথম আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা ছিল ২০০৭ নেহরু কাপ। প্রথম ম্যাচে কম্বোডিয়াকে ৬-০ হারায় ভারত। দু’টি গোল করেন সুনীল। সিরিয়ার কাছে হার এবং কিরগিজস্থানের বিরুদ্ধে জয়ের ম্যাচেও গোল করেন তিনি।

সেই শুরু। তারপর থেকে ক্রমশ ভারতের এক নম্বর স্ট্রাইকার হয়ে ওঠেন সুনীল। বাইচুং ভুটিয়া অবসর নেয়ার পর সুনীলই ভারতীয় ফুটবলের প্রধান মুখ হয়ে ওঠেন। নিজস্ব প্রতিভা এবং দক্ষতায় তিনি বাকিদের টেক্কা দিতে থাকেন। বব হাউটন থেকে ইগর স্টিমাচ, কোনো কোচই সুনীলকে ছাড়া দল করতে পারেননি।

জাতীয় দলের হয়ে খেলতে নামলে এখনো সুনীলের দিকে তাকিয়ে থাকেন সমর্থকরা। কতবার তিনি ভারতকে লজ্জার হাত থেকে বাঁচিয়েছেন বা দেশকে গর্বিত করেছেন তা গুনে শেষ করা যাবে না। এখন পর্যন্ত সুনীলের যোগ্য উত্তরসূরি খুঁজে পাওয়া যায়নি। সম্ভাব্য হিসেবে অনেকের নাম উঠে আসছে। কিন্তু সুনীলের জায়গা কে পূরণ করবেন, তা নিয়ে এখনো জল্পনা চলছে।

সুনীলের অবসর তাই একটি যুগের অবসান। গত প্রায় এক দশক ধরে সুনীল যে ভাবে ভারতীয় ফুটবলের পতাকাবাহক হয়ে উঠেছিলেন, তা অবশেষে শেষ হতে চলেছে।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –