• রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

১৯৯৬ সালের ক্যালেন্ডারেই চলবে ২০২৪

প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি ২০২৪  

বছর শুরু হতেই সবাই ঘরে কিংবা টেবিলের পুরোনো ক্যালেন্ডার বদলে নেন। বর্তমানে হাতে থাকা স্মার্টফোনে ক্যালেন্ডার থাকায় সেই রং বেরঙের ছবিসহ ক্যালেন্ডারের কদর কিছুটা কমেছে। অনেকেই বছরের ছুটির দিনগুলো আগেই দেখে নেন।

জানেন কি? 'চক্রবৎ পরিবর্তন্তে', পৃথিবীতে অনেক কিছুই আবার ফিরে ফিরে আসে। নতুন বছর তো পড়ে গিয়েছে বেশ কয়েক দিন হলো। জানেন কি এই বছরের ক্যালেন্ডারের সঙ্গে মিল রয়েছে কোন বছরের ক্যালেন্ডারের? যদি নতুন বছরের ক্যালেন্ডার না পেয়ে থাকেন তবে সেই নির্দিষ্ট পুরোনো বছরের ক্যালেন্ডার দিয়েই কাজ চালিয়ে দিতে পারবেন।

১৯৯৬-২০২৪ দুই বর্ষেরই প্রথম দিন শুরু হয়েছে সোমবার দিয়ে। এই দুই বছরই লিপ ইয়ার বা অধিবর্ষ। এই কারণেই ১৯৯৬ সালের ক্যালেন্ডার চলতি বছরে ব্যবহার করা যাবে। অনেকেই বিষয়টি জানতে পেরেছেন ইন্টারনেটের কল্য়াণে। নব্বইয়ের দশকের প্রতি স্মৃতিমেদুর হয়ে অনেকে তো আবার তিন দশকের পুরোনো ক্যালেন্ডার সংগ্রহেরও চেষ্টা করছেন এখন।

২০২৩ সালের শেষের দিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই জানান, কীভাবে ২০২৪ সালের ক্যালেন্ডারের সঙ্গে ১৯৯৬ সালের ক্যালেন্ডার মিলে যাবে। এ নিয়ে বানানো টিকটকের একটি ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল হয়। সেই ভিডিওটি দেখা হয়েছে ১৫ লাখেরও বেশি বার। যাদের জন্ম ১৯৯৬ সালে তারাও দেখে নিতে পারেন আপনার জন্মের দিনক্ষণ, বার।

দেখে নিন, ১৯৯৬ সালের সঙ্গে ২০২৪ এর কী কী মিল রয়েছে। ১৯৯৬ সালের ৫ নভেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রে। সেবার যুক্তরাষ্ট্রের ভোটে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছিলেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী বিল ক্লিনটন। দ্বিতীয় দফায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। এই বছরও ৫ নভেম্বর আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। এবার ডেমোক্রেটিক পার্টির হয়ে দ্বিতীয় দফায় লড়তে চলেছে বর্তমানের আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

১৯৯৬ সালের সঙ্গে আরও একটি মিল রয়েছে ২০২৪ সালের। তা হলো ১৯৯৬ সালেই অলিম্পিকের আসর বসেছিল। এ বছরেও বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর বসতে চলেছে। তবে দিন ও তারিখ আলাদা হবে। এত সবকিছুর মধ্যে আবার নয়া ব্যবসা। পুরোনো জিনিসপত্র বিক্রির সাইট ই-বে ১৯৯৬ সালের শত শত ক্যালেন্ডার এরই মধ্যেই বিক্রি করে ফেলেছে।

এসব ক্যালেন্ডারের প্রচ্ছদ করা হয়েছে বার্বি থেকে শুরু করে কানাডিয়ান-আমেরিকান মডেল ও অভিনেত্রী পামেলা অ্যান্ডারসনকে দিয়ে। ক্যালেন্ডারগুলোর দাম ৫০ ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫ হাজার ৪৭৫ টাকা থেকে ২০০ ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২১ হাজার ৯০২ টাকা।

এছাড়া কিছু কিছু ক্যালেন্ডার বিক্রি হচ্ছে ১৪৯ ডলার ৯৯ সেন্টেও। এসব ক্যালেন্ডারগুলোতে রয়েছে নব্বইয়ের দশকের ফ্যাশন ট্রেন্ড, হেয়ার স্টাইলসহ তৎকালীন জীবনযাত্রার নানা ছবি। এসব দেখেই স্মৃতিকাতর হয়ে পড়ছেন অনেকে। মনে পড়ে যাচ্ছে ফেলে আসা সেদিনের কথা।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –