• বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ২ ১৪৩১

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৬

সর্বশেষ:
আশা করি শিক্ষার্থীরা আদালত থেকে ন্যায়বিচার পাবে: প্রধানমন্ত্রী। নিহতদের পরিবারের জীবন জীবিকার ব্যবস্থা করে দেব: প্রধানমন্ত্রী। শিক্ষার্থী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে: প্রধানমন্ত্রী। বিশ্ববাজারে স্বর্ণ মূল্যের নতুন রেকর্ড। বৃহস্পতিবার ঢাকায় মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশের ডাক।

ফুচকার স্বাদ নিচ্ছে গুগলও

প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০২৩  

ফুচকার মতো জিভে জল আনা লোভনীয় খাবার বোধহয় পৃথিবীতে খুব কম আছে। ফুচকার আরেক নাম ‘পানিপুরি’। এই একটি খাবার যা মনে করলেও জিভে চলে আসে। আর তার সঙ্গে আলুর পুর আর তেঁতুল জলে ডুবিয়ে ফটাফট মুখ চালান করে দেন আপামর ফুচকা প্রেমীরা। যা একেবারে অমৃতের স্বাদ দেয়!

দক্ষিণ এশিয়ার জনপ্রিয় স্ট্রিটফুড ফুচকার স্বাদ উদযাপন করেছে গুগল। সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্টটি প্রকাশ করেছে বিশেষ ডুডল। আজ বুধবার গুগলের হোম পেজে শোভা পাচ্ছে বিশেষ এই ডুডল। যাকে ‘পানি পুরি’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

ডুডলটি প্রকাশ হয়েছে অনলাইন গেম আকারে। ফলে ফুচকার স্বাদ কল্পনার পাশাপাশি স্কোরও করা যাচ্ছে। যেখানে রয়েছে নানা স্বাদ ও চেহারার ফুচকা। ডুডলে ট্যাপ করলে লেখা উঠছে ‘সেলিব্রেটিং পানিপুরি (ফুচকা)’। সেখানে ক্লিক করলে লেখা উঠছে ‘পানিপুরি (ফুচকা নামেও পরিচিত) খাবারটি দক্ষিণ এশিয়ার জনপ্রিয় স্ট্রিট ফুড। চুজ এ মুড।’

দক্ষিণ এশিয়ার এই জনপ্রিয় স্ট্রিটফুড ভারতের বিভিন্ন স্থানে এটি পানিপুরি নামেই পরিচিত। সাধারণ স্ট্রিটফুড এই পানিপুরি তৈরি হয় ময়দা দিয়ে। এরপর ফুলকো পুরির মধ্যে আলু, মরিচ, পেঁয়াজ, ছোলা সিদ্ধ, মসলাসহ বিভিন্ন কিছুর পুর ভরে তেঁতুলের টক পানিতে ডুবিয়ে খেতে হয়।

ভারতজুড়ে পানিপুরির অনেক আঞ্চলিক বৈচিত্র্য রয়েছে। মহারাষ্ট্র এবং অন্ধ্র প্রদেশে, পানিপুরি হচ্ছে সিদ্ধ ছোলা, মটর এবং মসলাদার মিশ্রণ ময়দার শক্ত ছোট্ট পুরিতে ভরে টক জল দিয়ে পরিবেশন করা হয়। তবে এই পানিপুরিকেই আবার ভারতের পাঞ্জাব, জম্মু ও কাশ্মীর এবং নয়াদিল্লিতে, জলজিরা-স্বাদযুক্ত জলে ডুবিয়ে আলু এবং ছোলা-ভর্তি এই খাবারকে গোল গাপ্পে বা গোল গাপ্পা বলা হয়।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ, বিখ্যাত ব্যক্তি, বিশেষ দিন, আবিষ্কার, ইতিহাস-ঐতিহ্য, খাবার প্রভৃতি নিয়ে সার্চ বক্সের ওপরে নিজেদের লোগোর পরিবর্তে সঙ্গতিপূর্ণ নকশার লোগো তৈরি করে গুগল, তাকে বলা হয় ডুডল। সাধারণত বিশেষ ডুডলগুলো সংশ্লিষ্ট অঞ্চল থেকেই দেখা যায়।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –