• বৃহস্পতিবার   ১৮ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ১৯ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
আমাদের বিচার চাইতেও বাধা দেওয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুজ প্রেমের কারণে জীবন দিতে হলো সানজিদাকে: পুলিশ জামানতবিহীন গুচ্ছভিত্তিক ঋণ দেওয়ার নির্দেশ একদিনে ৮ কোটি ডলার বিক্রি করল বাংলাদেশ ব্যাংক কমতে পারে জ্বালানি তেলের দাম

মৎস্য-প্রাণিসম্পদ খাতে দ্রুত সেবার পৌঁছাতে কল সেন্টার চালু হয়েছে

প্রকাশিত: ৫ জুন ২০২২  

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে মানুষের দ্বারপ্রান্তে দ্রুত সেবা পৌঁছে দিতে কল সেন্টার চালু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

রোববার রাজধানীর মৎস্য ভবনে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়নাধীন ‘মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে ই-সেবা কার্যক্রম চালুকরণ’ প্রকল্পের আওতায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সেবা কল সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

এ সময় মৎস্য সচিব ড. মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার ও মো. তৌফিকুল আরিফ, মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালক খ. মাহবুবুল হক, প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদা, প্রকল্প পরিচালক পুলকেশ মন্ডলসহ মন্ত্রণালয়, মৎস্য অধিদফতর ও প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শ ম রেজাউল বলেন, আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিক হচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশ। কল সেন্টারের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য গতিতে মৎস্য অধিদফতর ও প্রাণিসম্পদ অধিদফতর সংযুক্ত হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, প্রান্তিক পর্যায় থেকে শুরু করে যেকোনো ব্যক্তি তার প্রয়োজনে সরাসরি সংযুক্ত হওয়ার সুবিধার্থে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ই-সেবা চালু করা হলো। গতানুগতিক পদ্ধতির বাইরে দ্রুততম সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতেই কল সেন্টার চালু করা হয়েছে।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করে রাজধানীতে মৎস্য অধিদফতরের সদর দফতরে একটি ও প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের সদর দফতরে অপর একটিসহ মোট দুটি কল সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। মৎস্য অধিদফতরের কল সেন্টারের নম্বর ১৬১২৬ এবং প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের কল সেন্টারের নম্বর ১৬৩৫৮। আপাতত সপ্তাহে পাঁচদিন (রোববার থেকে বৃহস্পতিবার) সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মৎস্য খাতের ও প্রাণিসম্পদ খাতের খামারি ও উদ্যেক্তারা কল সেন্টার থেকে সরাসরি সেবা পাবেন।

মৎস্য চাষি ও খামারিরা মৎস্য চাষ, মাছের রোগবালাইসহ নানা বিষয়ে টেলিফোন কল সেন্টার থেকে তথ্য ও সেবা পাবেন। একইভাবে প্রাণিসম্পদ খাতের খামারি ও উদ্যোক্তারা প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের কল সেন্টার থেকে গবাদিপশু পালন ও ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে পরামর্শ ও সেবা পাবেন।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –