• শনিবার ২০ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৭ ১৪৩১

  • || ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

সর্বশেষ:
বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার অন্যতম নকশাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা শিব নারায়ণ দাস, আজ ৭৮ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেছেন। বন্যায় দুবাই এবং ওমানে বাংলাদেশীসহ ২১ জনের মৃত্যু। আন্তর্জাতিক বাজারে আবারও বাড়ল জ্বালানি তেল ও স্বর্ণের দাম। ইসরায়েলের হামলার পর প্রধান দুটি বিমানবন্দরে ফ্লাইট চলাচল শুরু। ইসরায়েল পাল্টা হামলা চালিয়েছে ইরানে।

মনের মতো নায়ক খুঁজে পেলেন রাজ রিপা

প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

‘এর আগে আমি কয়েকটি সিনেমায় কাজ করেছি। সেই সিনেমাগুলোতে আমি নিজেই নায়ক ছিলাম। সিনেমাগুলোতে অন্য সবাই চরিত্র অভিনয়শিল্পী ছিলেন। কোনো নায়ক ছিল না। তখন খুব মন খারাপ ছিল। নিজেই নিজের কাছে প্রশ্ন রাখতাম- আমার কি কখনো জুটি হবে না? বাসায় বসে ভাবতাম রাজ রিপার সঙ্গে কোন নামটা যায়। অবশেষে মনের মতো নায়ক খুঁজে পেলাম। শিশির সরদার-রাজ রিপা।’ নতুন সিনেমার মহরত অনুষ্ঠানে এভাবেই মনের মতো নায়ক পেয়ে উচ্ছ্বসিত কণ্ঠে কথাগুলো বলেন নবাগত চিত্রনায়িকা রাজ রিপা।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিএফডিসিতে অনুষ্ঠিত হয় সিনে মিডিয়ার ব্যানারে নির্মিতব্য ‘মৃত্যু ১৯’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠান। সিনেমাটির মাধ্যমে প্রথমবার জুটি হচ্ছেন নবাগত নায়ক-নায়িকা শিশির সরদার ও রাজ রিপা। এর আগে উভয়েই সিনেমায় কাজ করলেও সেগুলো এখনো মুক্তির আলোয় আসেনি। নতুন জুটিকে নিয়ে সিনেমাটি নির্মাণ করবেন তরুণ চলচ্চিত্র পরিচালক তানভীর হাসান। খুব শিগগির সিনেমাটির কাজ শুরু হবে বলে জানানো হয়।

শিশিরকে অনেক ভালোবাসেন জানিয়ে রাজ রিপা বলেন, ওর অনেক যোগ্যতা আছে। সেটি এখন প্রমাণের সময় এসেছে। সেই সঙ্গে আমারও সবার সামনে যোগ্যতা প্রমাণ করতে হবে। দুই নবাগত সাহস করে একসঙ্গে নতুন কিছু করার জন্য জুটি বেঁধেছি। আজ মহরতে গুণী পরিচালকরা মাথায় হাত রেখেছেন, যখন সুপারস্টার হবো তখনো তারা মাথায় হাত রাখবেন, ইনশাআল্লাহ।

পুরোনো কথা স্মরণ করে অনেকটা আক্ষেপের সুরে এই অভিনেত্রী বলেন, আজ থেকে পাঁচ বছর আগে বিএফডিসিতে ‘দহন’ সিনেমার ট্রেইলার উন্মোচনে এসেছিলাম। তখন আমি নতুন ছিলাম, কেউ সেভাবে চিনত না। যার কারণে আমাকে মঞ্চে ডাকা হয়নি। তখন থেকেই চ্যালেঞ্জ ছিল বিএফডিসিতে নায়িকা হয়েই প্রবেশ করব। বড় আয়োজনে মহরত হবে। অবশেষে সেই স্বপ্নটা পূরণ হয়েছে। আমি এর শেষ দেখে ছাড়ব। আমি ভেঙে যাব কিন্তু মচকাবো না। শক্ত হয়ে দাঁড়িয়েছি এর শেষ দেখার জন্য। এর আগে এফডিসিতে আসিনি। মনে অনেক কষ্ট ছিল। এখন থেকে নিয়মিত এফডিসিতে আসব। এখানকারই মেয়ে হয়ে থাকব।

নিজের স্বপ্নের কথা জানিয়ে শিশির সরদার বলেন, আমি একজনকে খুব ফলো করি এবং অনেক ভালোবাসি। তার জায়গায় একদিন পৌঁছাতে চাই। তিনি আমাদের সবার প্রিয় শাকিব ভাই। তিনি আমার স্বপ্নের নায়ক। আমি স্বপ্ন দেখি পরবর্তী সময় তিনি আমার পাশে থাকবেন। আমি স্বপ্ন দেখলে সেটি সত্যি হয়। একদিন তার জায়গায় পৌঁছাবো এবং তিনি আমার মাথায় হাত রেখে দোয়া করবেন। সিনেমাটি আমাদের স্বপ্নের। অন্যরকম গল্পে সিনেমাটি নির্মিত হবে। আশা করছি, সিনেমাটি মুক্তি পেলে আমাদের জুটি সবার পছন্দ হবে।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –