• শুক্রবার ১২ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

  • || ০৪ মুহররম ১৪৪৬

ডায়েটের ৩ বদভ্যাসে বাড়ে ওজন

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০২৩  

 
আমাদের সমস্যা হলো কথায় কথায় ডায়েট শুরু করা। পরামর্শ আধো আধো শুনেই অনেকে শুরু করেন ডায়েট। কাজের কাজ অনেক সময় কিছুই হয় না। বাজে অভ্যাসের  কারণে ওজন বাড়ে। তখন ডায়েটকেই দোষ দেন। আসল সমস্যা হলো ডায়েটের মূল উদ্দেশ্যই নষ্ট হয়। আমরা তিনটি বাজে অভ্যাস এর কারণে এই ওজন বাড়ার সম্পর্ক খুঁজে পেয়েছি।

সকালের খাবার না খাওয়া
সকালের খাবার দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। পশ্চিমারা তাদের নাশতাকে দিনের সবচেয়ে 'হার্ডি' খাবার বানানোর ব্যাপারে উৎসাহী থাকে। ডায়েটের সময় অনেকে সকালের খাবার খান না। ডায়েট মানে খাবার এড়ানো নয়। ডায়েটে একটা নির্দিষ্ট খাদ্যাভ্যাস অনুসরণ করা জরুরি। এই খাদ্যাভ্যাসের মাধ্যমে ওজন কমাবেন। সকালে খাবার না খেলে সারাদিন কাজ করার পর্যাপ্ত শক্তি পাওয়া যায় না। আর শক্তি না পেলে স্ট্রেস হয়। স্ট্রেস থেকে স্ট্রেস হরমোন নির্গত হলে ওজন বাড়বেই। 

পানি পানে অনীহা
ডায়েটের সময় পানি পান করতে হবে। শরীর হাইড্রেটেড রাখা ও শরীরে প্রয়োজনীয় উপাদান প্রবাহের সুবিধা করে দিতে এর বিকল্প নেই। তাই প্রচুর পানি পান করুন। নির্দিষ্ট সময়ে একসঙ্গে অনেক পানি পান নয়। শরীরকে সারাদিনে ধারাবাহিকভাবে পানি দিন। 

প্রোবায়োটিক খেতে চায় না
অনেকেই ডায়েটের সময় প্রোবায়োটিক গ্রহণ করেন না। শরীরে প্রোবায়োটিক না থাকলে ওজন কমানো অনেক কঠিন কাজ হয়ে যায় ডায়েটে দুগ্ধজাত পণ্য এড়ানো ভুল। দুগ্ধজাত অনেক পণ্যে প্রোবায়োটিক প্রচুর থাকে। আর প্রোবায়োটিক থাকা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। তাই এক্ষেত্রে গাফিলতি না করে দই, মাঠা, লাবাং এসব খাবার খান। 

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –