• শুক্রবার ১২ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

  • || ০৪ মুহররম ১৪৪৬

শরীরচর্চার আগে যা খাবেন না

প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

শরীরচর্চার আগে যা খাবেন না                                           
ওয়ার্ক আউট কিংবা এক্সারসাইজের আগে আমরা বিভিন্ন খাবার খেয়ে থাকি৷ এর পেছনের উদ্দেশ্য যে সৎ তাতে কোনো সন্দেহ নেই। বাজারের বিজ্ঞাপনগুলোর প্রচারণার ফাঁদে প্রতিনিয়তই আমিরা আটকে থাকি। তাই বিশ্বাস করাটাই স্বাভাবিক। কিন্তু কিছু কিছু খাবার উপকারের বদলে অপকারটাই বেশি করে। 

প্রশ্ন হলো ওয়ার্ক আউটের আগে কি কি খাবার বা পানীয় একেবারেই খাওয়া যাবে না? চলুন দেখে নেওয়া যাক। 

গ্র‍্যানোলা বা প্রোটিন বার
ওয়ার্ক আউটের আগেই আমরা গ্র‍্যানোলা বা প্রোটিন বার খাই। বিশেষত বাজারে স্নিকার্স তো পাওয়াই যায়। একবার মোড়কটা খেয়াল করে দেখুন। এই জাতীয় খাবারে প্রচুর চিনি থাকে। যা দেহে অতিরিক্ত মেদ জমাতে অবদান রাখে। তাই ওয়ার্ক আউটের আগে গ্র‍্যানোলা বা প্রোটিন বার খাবেন না। 

ফাইবারে ভরা সবজি
ব্রকোলি বা এমন অনেক সব্জিতে প্রচুর ফাইবার থাকে। হ্যা, ফাইবার দেহের জন্যে উপকারী। কিন্তু এক্সারসাইজের আগে এমন কিছু না খাওয়াই ভালো। মূলত হাই-ফাইবার পরিপাকে সময় লাগে। আর এতে ওয়ার্ক আউট আরো ক্লান্তিকর হয়ে ওঠে। 

ফ্যাটে পরিপূর্ণ খাবার
সব ধরণের ফ্যাট খারাপ না। তবে যেসকল খাবারে প্রচুর ফ্যাট থাকে সেগুলো খারাপ। ফ্যাট আপনার দেহে তাপশক্তি জোগায়। কিন্তু লাল মাংসজাতীয় অনেক প্রোটিন দেহের ফ্যাট দ্রবীভূত করতে প্রচুর পরিশ্রম করে। যা ক্লান্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

দই
ডেইরি পণ্য হজম করতে সময় লাগে। আর অনেক কোম্পানি দইয়ে প্রচুর চিনি দেয়। তাই ওয়ার্কাউটের আগে দই না খাওয়ার পরামর্শ রইলো। 

ফলের জুস
ফলের জুসে অনেক সময় প্রচুর চিনি মেশানো হয়। তাই ফলের জুস না খেয়ে ফল খাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। 

এনার্জি ড্রিংক
এনার্জি ড্রিংক হয়তো আপনাকে চাঙা করবে। কিন্তু এনার্জি ড্রিংক আপনার ব্লাড প্রেশার বৃদ্ধি করে। যা মোটেও ভালো কিছু না।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –