• শুক্রবার ১২ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

  • || ০৪ মুহররম ১৪৪৬

জার্মানির কাছে ৭ গোলের পর এটাই ব্রাজিলের বড় লজ্জা

প্রকাশিত: ২১ জুন ২০২৩  

২০১৪ সালের স্মৃতি কি কখনো ভুলতে পারবে ব্রাজিল? সেবার ঘরের মাঠে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে নাস্তানাবুদ হয়ে হেরেছিল ব্রাজিল। এর পরের ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের কাছে ৩-০ ব্যবধানে হেরেছিল সেলেসাওরা। সেটাই ছিল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যবধানে হারের রেকর্ড। 

এর মাঝে প্রতিপক্ষের জালে গোল উৎসব করেছিল পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। যেখানে প্রতিপক্ষকে ৭ গোল দেওয়ার রেকর্ডও আছে তাদের। কিন্তু মঙ্গলবার (২০ জুন) ফের ফিরে এলো দুঃসহ স্মৃতি। যেখানে সেনেগালের কাছে ৪-২ গোলে হেরেছে সেলেসাওরা। যা ২০১৪ সালের পর ম্যাচে সর্বোচ্চ গোল খেয়ে হারার রেকর্ড। 

অথচ সেনেগালের বিপক্ষে ম্যাচটিতে ৬৩ শতাংশ বল দখলে রেখেছিল পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। প্রতিপক্ষের গোলবার লক্ষ্য করে ১১টি শট নেয় তারা, যার ৫টিই ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে সেনেগাল ৩৭ শতাংশ বল দখলে রেখে ৭ শট নেয়, লক্ষ্যে ছিল ৪টি।

কিন্তু ভাগ্য ব্রাজিলের সহায় ছিল না। তাই তো জার্মানির কাছে ৭-০ গোলে পরাজয়ের ৯ বছর পর এত বড় ব্যবধানে পরাজিত হলো তারা। এর আগে ব্রাজিল ২০১৬ সালের জুনে কোপা আমেরিকার ম্যাচে হাইতির বিপক্ষে ৭-১ গোলে জয় পেয়েছিল। একই বছর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে বলিভিয়াকে হারিয়েছিলে ৫-০ গোলে। 

২০১৮ সালে এসে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে এল সালভেদরকে ৫-০ গোলে হারায় ব্রাজিল। ২০১৯ সালের জুনে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে হন্ডুরাসের জালে গোল উৎসব সেলেসাওরা। সেবার তারা ৭-০ গোলে হারায় হন্ডুরাসকে। একই বছর কোপা আমেরিকার ম্যাচে পেরুর জালে ৫ গোল দেয় ব্রাজিল। 

২০২০ সালে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে বলিভিয়ার বিপক্ষে ৫-০ গোলে জয় পায় তারা। ২০২২ সালে এসে দক্ষিণ কোরিয়া ও তিউনিসিয়ার বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ৫-০ গোলে জয় পায় লাতিন আমেরিকার দলটি। এরপর চলতি বছর আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে গিনির বিপক্ষে ৪-১ গোলে জয় পায় তারা। 

তবে এসব আনন্দের পরই লজ্জা পেলো ব্রাজিল। তিন দিন পর সেনেগালের কাছে ৪-২ গোলে হারল তারা। 

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –