• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

‘ভাষা আন্দোলনের বিজয় বাঙালিকে স্বাধীনতার জন্য উদ্বুদ্ধ করেছিল’

প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, ভাষা আন্দোলনের বিজয় বাঙালিকে স্বাধীনতার জন্য উদ্বুদ্ধ করেছিল। এ আন্দোলন বাঙালি জাতীয়তাবাদের আন্দোলনে গতি ও শক্তি যুগিয়েছিল। পৃথিবীতে আমরাই একমাত্র জাতি যারা মাতৃভাষার মর্যাদার জন্য জীবন উৎসর্গ করেছি। আমাদের মাতৃভূমির সাহসী সন্তানেরা এ দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন।

বুধবার জামালপুরের ইসলামপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন তিনি।

ধর্মমন্ত্রী বলেন, ১৯৪৭ সালে দ্বি-জাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে পাকিস্তান সৃষ্টির পর প্রথম আঘাত আসে আমাদের মাতৃভাষা বাংলার ওপর। আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তখন এই অন্যায় পদক্ষেপের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ করেছিলেন। ১৯৪৮ সালের ১১ মার্চ বাংলাকে পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে রাষ্ট্রভাষা পরিষদ ধর্মঘটের ডাক দেয় এবং সেদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, আমাদের ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে বিশ্বব্যাপী ভাষাগত বৈচিত্র্য এবং বহুভাষিকতার প্রচার ও প্রসারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা বাংলাদেশের অবদানেরই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। ভাষা আন্দোলনের চেতনাকে আন্তর্জাতিকীকরণে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। সর্বাত্মক প্রচেষ্টার ফলে ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর জাতিসংঘ ২১শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা করে।

ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুস ছালাম, সহ-সভাপতি আ. লতিফ সরকার, জামাল আবু নাছের চৌধুরী চার্লেসসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা করেন।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –