• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

বিক্ষোভরত ইসরায়েলি জিম্মিদের স্বজনদের আটক করেছে পুলিশ

প্রকাশিত: ২৮ মার্চ ২০২৪  

গাজায় হামাসের হাতে ইসরায়েলি জিম্মিদের আত্মীয় স্বজন তেল আবিবে বিক্ষোভ করায় তাদেরকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

ইসরায়েলি পুলিশ এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বেআইনি হওয়ার পরেও পুলিশ জিম্মি পরিবারের সদস্যদের বিক্ষোভে বাধা দেয়নি। কিন্তু কয়েকজন বিক্ষোভকারী হাইওয়েতে গিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। এতে যান চলাচলে বাধা তৈরি হয়। তাই ওই বিক্ষোভকারীদের আটক করা হয়।

ইসরায়েলের বিরোধী দলীয় নেতা ইয়ার লাপিদ বলেছেন, জিম্মি পরিবারগুলোর প্রতি সরকারের আরো সহনশীলতা দেখানো উচিত।

মঙ্গলবার রাতে তেল আবিবে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর সদর দফতরের বাইরে বিক্ষোভে অংশ নেন অন্তত ৩০০ মানুষ। এসময় রাজধানীর একটি প্রধান সড়ক অবরোধ করে তারা।

গাজায় যুদ্ধবিরতি ও জিম্মি মুক্তির বিষয়ে সর্বশেষ আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার পর ইসরায়েলের সড়কে প্রায় প্রতিদিনই বিক্ষোভ করছেন জিম্মি পরিবারের সদস্যরা।

জানা গেছে, কাতার, মিশর ও আমেরিকার মধ্যস্থতায় ইসরায়েলি কর্মকর্তাদের আলোচনা ভেস্তে যাওয়ায় ইসরায়েলে বিক্ষোভ বাড়ছে। মধ্যস্থতাকারীরা ১৩০ জনের মধ্যে ৪০ জিম্মির মুক্তির বিনিময়ে ৬ সপ্তাহের জন্য গাজায় ইসরায়েলি হামলা বন্ধের জন্য আলোচনা চালাচ্ছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে অন্তত ৩০ জন জিম্মি এরইমধ্যে মারা গেছেন। 

ওই ৪০ জিম্মির মুক্তির বিনিময়ে ইসরায়েলের কারাগারে আটক ৭০০ থেকে ৮০০ ফিলিস্তিনি বন্দিকে মুক্তি দিতে রাজী হয় ইসরায়েল। বাস্তুচ্যুত কিছু ফিলিস্তিনি পরিবারকে ধাপে ধাপে দক্ষিণ গাজায় তাদের ঘরে ফেরার অনুমতি দিতেও রাজী হয়।

তবে স্থায়ী যুদ্ধবিরতি এবং গাজা থেকে পুরোপুরিভাবে ইসরায়েলি সেনা প্রত্যাহারের দাবি জানায় হামাস।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –