• বৃহস্পতিবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৪ ১৪২৯

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শেখ হাসিনার আজ জন্মদিন, জীবন যেন এক ফিনিক্স পাখির গল্প আজ থেকে করোনা টিকার বিশেষ ক্যাম্পেইন রংপুরে বাসের ধাক্কায় নিথর হলেন অটোযাত্রী ক্ষেতে কাজ করার সময় বজ্রপাত, প্রাণ গেল কৃষকের পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি, ৩ দিন বাড়ল তদন্ত প্রতিবেদন জমার মেয়াদ

হাতীবান্ধায় কলেজছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে, অতঃপর

প্রকাশিত: ১১ আগস্ট ২০২২  

হাতীবান্ধায় কলেজছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে, অতঃপর                
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় এক কলেজছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করেন প্রেমিক তিলক রায় ওরফে শুভ (৩০)। পরে ১৯ বছর বয়সী ওই কলেজছাত্রীকে ভারতে পাচার করেন তিনি।

তিলক রায় উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের গেন্দুকড়ি গ্রামের ধনঞ্জয় রায়ের ছেলে। ভারতের শিলিগুড়ি এলাকার এক বাসায় বন্দি অবস্থায় নিজেকে উদ্ধারের আর্তি জানিয়ে ভুক্তভোগী কলেজছাত্রীর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে বিষয়টি জানাজানি হয়।

ভুক্তভোগীর বড় ভাই জানান, আমার বোনের সঙ্গে তিলক ওরফে শুভর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিভিন্নভাবে প্রলোভন দেখিয়ে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বোনকে নিয়ে ঢাকায় পালিয়ে যান শুভ। সেখানে তারা বিয়ে করেন। বিয়ের পরে আমার বোন জানতে পারেন তিলক ওরফে শুভ হিন্দু। এরপর আর তাদের দেখা পাওয়া যায়নি।

এরপর বোনকে না পেয়ে তাকে উদ্ধারে ফেব্রুয়ারি মাসে তিলক, তার বাবা ধনঞ্জয়, তার মামা গোপাল ও দুই বন্ধুর নামে হাতীবান্ধা থানায় এজাহার দায়ের করেন ভুক্তভোগীর বড়ভাই। তারপরেও তাদের কোনো খোঁজ-খবর পাননি তারা।

এরপর একদিন ভুক্তভোগী ওই কলেজছাত্রী তার বড় ভাইয়ের মোবাইলে নির্যাতনের কিছু ভিডিও ফুটেজ পাঠান। সেই ফুটেজ দেখে তার ভাই আরেকজনকে সঙ্গে নিয়ে চলতি মাসের ৪ তারিখ ভারতের শিলিগুড়ি এলাকায় গিয়ে পুলিশের সাহায্য নেন। ৫ তারিখ পুলিশ শিলিগুড়ি এলাকার এক বাসা থেকে ভুক্তভোগীকে উদ্ধারসহ তিলককে আটক করে এনজেপি থানায় নিয়ে আসে। বর্তমানে তারা থানা হেফাজতে আছে বলে তার বড় ভাই জানান।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –