• বৃহস্পতিবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৭ ১৪২৮

  • || ১৪ সফর ১৪৪৩

সর্বশেষ:
জলবায়ু ইস্যুতে বিশ্বনেতাদের জোরালো পদক্ষেপ চান প্রধানমন্ত্রী লিঙ্গ সমতা নিশ্চিতে বিশ্বনেতাদের সামনে প্রধানমন্ত্রীর ৩ প্রস্তাব পীরগঞ্জে পর্নোগ্রাফির আলামতসহ ওয়ারেন্টভুক্ত ৮ আসামি গ্রেপ্তার লাশের পকেটে চিরকুট, ছিল মোবাইল নম্বর রংপুরে কিস্তির চাপে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

আমেরিকা ‘দোহা চুক্তির’ লঙ্ঘন করেছে: তালেবান 

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১  

আফগানিস্তানে তালেবানের ঘোষিত অন্তর্বর্তী সরকারের কয়েকজন মন্ত্রীর নাম আমেরিকার সন্ত্রাসী কালো তালিকায় থাকার ঘটনাকে ‘দোহা চুক্তির’ লঙ্ঘন বলে অভিহিত করেছে তালেবান।

তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, ইসলামি আমিরাত আফগানিস্তান এ ঘটনাকে ‘দোহা চুক্তির’ সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে মনে করে এবং এর ফলে আমেরিকা ও আফগানিস্তান উভয়ই ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

২০২০ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি কাতারের রাজধানী দোহায় তাবানের সঙ্গে শান্তি চুক্তি সই করে আমেরিকা। ওই চুক্তিতে আফগানিস্তান থেকে সকল মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দেয় ওয়াশিংটন।

গত মঙ্গলবার রাতে মোল্লাহ হাসান আখুন্দের নেতৃত্বে তালেবানের নয়া অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের ঘোষণা দেন জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ। তার পক্ষ থেকে ‘ইসলামি আমিরাত’ আফগানিস্তানের মন্ত্রিসভা ঘোষিত হওয়ার পর আমেরিকা জানায়, ওই মন্ত্রিসভায় কয়েক সদস্যের পাশাপাশি হাক্কানি পরিবারের সকল সদস্যের নাম ওয়াশিংটনের সন্ত্রাসবাদের কালো তালিকায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

তালেবান মুখপাত্র মুজাহিদ এ সম্পর্কে আরও বলেছেন, হাক্কানি পরিবার ইসলামি আমিরাতের অবিচ্ছেদ্য অংশ এবং তাদের আলাদা কোনও নাম বা সংগঠন নেই।

মুজাহিদ বলেন, দোহা চুক্তিতে কোনও ধরনের ব্যতিক্রম ছাড়া ইসলামি আমিরাতের সকল সদস্যকে স্বীকৃতি দিয়েছে আমেরিকা। কাজেই তাদের নাম জাতিসংঘ এবং আমেরিকার কালো তালিকা থেকে বাদ দেওয়া উচিত ছিল। কিন্তু তালেবানের এ দাবি এখন পর্যন্ত ওয়াশিংটন মেনে নেয়নি।

তালেবান গত মঙ্গলবার যে মন্ত্রিসভা ঘোষণা করে তাতে এই গোষ্ঠীর নেতাদের বাইরে কারও নাম নেই। সমালোচকরা বলছেন, তালেবান আফগানিস্তানে একটি অংশগ্রহণমূলক সরকার গঠনের যে ঘোষণা দিয়েছিল, গঠিত সরকারে তার প্রতিফলন দেখা যায়নি এবং এই সরকারে আফগানিস্তানের সকল জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্ব নেই।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –