• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৭ ১৪২৯

  • || ১২ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শোক দিবসের অনুষ্ঠানে মাস্ক-টিকা সনদ বাধ্যতামূলক অর্থনীতিতে স্বস্তির আভাস মিলেছে: গভর্নর সরকারি ওষুধ চুরি করে বিক্রি করলে ১০ বছরের জেল প্রহরীর গলা কাটা মরদেহ, পার্কের মালিকসহ গ্রেপ্তার ৩ আন্তর্জাতিক গণিত প্রতিযোগিতায় ৫ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর অনন্য অর্জন

কর্মসূচি নিয়ে চিন্তার ভাঁজ বিএনপির নীতিনির্ধারকদের!

প্রকাশিত: ১৮ ডিসেম্বর ২০২১  

দলীয় চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতির অজুহাতে বিক্ষোভের ডাক দেয় বিএনপি। সে ডাকে রাজধানীতে একটি, সারাদেশে কয়েকটি জেলার কিছু নেতাকর্মীরা সাড়া দেন। বিক্ষোভের ডাকে নেতাদের সাড়া না পেয়ে বিএনপির নীতিনির্ধারকদের মাঝে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে। 

দলীয় সূত্র জানায়, চলতি বছরের ১৫ ডিসেম্বর খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতির অজুহাতে প্রতিটি জেলায় বিক্ষোভের ডাক দেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার ডাকা কর্মসূচিতে তৃণমূলের কিছু নেতাকর্মী সাড়া দিয়েছিলেন। তবে সিংহভাগ নেতাকর্মীরা কর্মসূচিতে সাড়া দেননি। 

সূত্র আরো জানায়, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ডাকা বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সাড়া দেননি স্বয়ং দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির কয়েকজন নেতা। এছাড়া  সাড়া দেননি রাজধানী একটি বিক্ষোভ মিছিল ছাড়া ঢাকা জেলার বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরাও।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ১৫ ডিসেম্বর সকালে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি বাড্ডার সুবাস্তু নজরভ্যালী টাওয়ারের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে ফুজি টাওয়ারের সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ওই মিছিলে অংশ নেন হাতেগোনা কয়েকজন নেতাকর্মী। একমাত্র রিজভী ছাড়া ঢাকায় অন্য কোনো কেন্দ্রীয় নেতাকে বিক্ষোভ মিছিল করতে দেখা যায়নি। এমনকি খোদ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কোনো বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেননি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বিএনপির অধিকাংশ বিক্ষোভ মিছিল ছবি বা মিডিয়া কভারেজের মধ্যেই শেষ হয়ে যায়, যা নিয়ে দলের ভেতর ও বাইরে নানা সমালোচনা শুরু হয়েছে। 

সারাদেশের বিক্ষোভ চিত্র সম্পর্কে জানা গেছে, চট্টগ্রাম, বগুড়া, ময়মনসিংহ, বরিশাল মহানগর, ফরিদপুর, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, খুলনা জেলা ও মহানগর, সিলেট জেলা ও মহানগর, রাজশাহী মহানগর ছাত্রদল বিক্ষোভ করলেও তাতে খুব বেশি জনসমাগম দেখা যায়নি।

পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশ নিয়ে বিএনপির কর্মী ইকবাল হোসেন জানান, চোখের পলকেই ব্যানার নাই। নিউজ কভারেজ করতেই ছোট পরিসরে হলেও নামমাত্র একটি বিক্ষোভ হয়েছে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির এক সদস্য বলেন, কর্মসূচি ডাকার পর তা পালনের ব্যর্থতা নিয়ে বেশ চিন্তিত আমাদের কেন্দ্রীয় নেতারা। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঘোষিত কর্মসূচিতে লোক না পাওয়ায় রীতিমতো হতাশ আমরা।

তিনি আরো বলেন, আমাদের সাংগঠনিক অবস্থা এখন লেজেগোবরে। দলের চেইন অফ কমান্ড না থাকায় কেউ কারো কমান্ড শোনে না। যার ফলে কর্মসূচি দিয়েও কর্মীদের পাওয়া যাচ্ছে না। এছাড়া আমরা যারা নীতিনিধারণী পর্যায়ে আছি, তাদের বেশির ভাগই অসুস্থ ও বাধ্যর্কজনিত কারণে কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকতে পারছি না।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –