• শনিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৪ ১৪২৯

  • || ০৫ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
বৃষ্টি নামলেই শীত, লঘুচাপের ইঙ্গিত দেশে নতুন সুপারফুড ‘সাউ কিনোয়া-১’ ‘আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সরকার সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে’ স্বল্প খরচে বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্য গ্রহণ করতে হবে জমি নিয়ে সংঘর্ষে দুই যুবক নিহত: ঘটনা জেরে ৩০ বাড়িতে আগুন

ব্যাটে বলে এবার টি টোয়েন্টি মাতিয়েছেন যারা

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০২২  

পর্দা নামলো অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপের অষ্টম আসরের। তাসমান পাড়ের ঢেউয়ের নৃত্যের তালে তালে ছন্দময়ী গানে ট্রফি উচিয়ে ধরলো ইংল্যান্ড। হতাশায় পুঁড়তে হলো এশিয়ার দেশ পাকিস্তানকে। দিনশেষে, বিশ ওভারের এ আসরে জিতেছে ক্রিকেট, বিনোদন আর উন্মাদনা।  

এই আসরে ব্যাট হাতে রানের ফুলঝুরি ছুটিয়েছেন অনেক ব্যাটার। বল হাতে গতির ঝলক কিংবা স্পিন জাদুতে মাঠের দর্শকদের মোহবন্দি করে রেখেছেন অনেক বোলার। তবে দিনশেষে সেরাদের কাতারে রয়ে গেছেন সেরারাই। আসরের সেসব সেরাদের দিকে একবার দৃষ্টিপাত করে নেওয়া যাক।

এবারের আসরে ব্যাট হাতে দারুণ সময় কাটিয়েছেন ভারতীয় ব্যাটার বিরাট কোহলি। তিন বছর ব্যাট হাতে তেমন রানের দেখা পাননি বিরাট। নিজেকে ফিরে পেয়েছেন আরব আমিরাতের মাটিতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে। সেই ধারা বজায় রাখলেন অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠিত বিশ ওভারের আসরেও।

এই আসরে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় শীর্ষ নামটি কোহলির। তার দল ভারত বিদায় নিলেও কোহলি আলো ছড়িয়েছেন আপন মহিমায়। ৬ ম্যাচ খেলে ৯৮.৬৬ গড়ে ২৯৬ রান করেছেন বিরাট। স্ট্রাইক রেট দেখার মতো, ১৩৬.৪০! তার সঙ্গে সেরা পাঁচ রান সংগ্রাহকের তালিকায় আছেন ম্যাক্স ও'ডাউড, সূর্যকুমার যাদব, জশ বাটলার ও কুশাল মেন্ডিস।

উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় সবার উপরে আছেন শ্রীলংকার স্পিনার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। তিনি ৮ ম্যাচের ৮ ইনিংসে নিয়েছেন ১৫ উইকেট। তারপর যথাক্রমে আছেন স্যাম কারান (১৩), ডি লিড (১৩), ব্লেজিং মুজারাবানি (১২), ও এনরিক নর্টজে (১১)।

আসরজুড়ে ইংল্যান্ডের বোলিং লাইনকে একাই টেনেছেন কারান। ইংল্যান্ডের মাথায় চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট পড়ানোতে তার ভূমিকা বেশ। ফাইনালেও ৪ ওভার বল করে দিলেন মাত্র ১২ রান। উইকেটও নিলেন তিনটি। মোহাম্মদ রিজওয়ান, শান মাসুদ এবং মোহাম্মদ নওয়াজের মত ব্যাটারের উইকেট নিলেন তিনি।

ফাইনালের জন্য সেরা হিসেবে স্যাম কারানকেই বেছে নিলেন বিচারকরা। শেষ দিকে রান তাড়া করতে গিয়ে বেন স্টোকসও অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন। ৪৯ বলে করেছেন অপরাজিত ৫২ রান। স্টোকসের এই অসাধারণ ব্যাটিং সত্ত্বেও কারানকে বেছে নেওয়ার কারণ তার সাঁড়াশি বোলিংয়ের কারণেই ১৩৭ রানে থামতে বাধ্য হয়েছিল পাকিস্তানিরা।

শুধু ম্যাচ সেরাই নন, পুরো টুর্নামেন্টে অসাধারণ বোলিং করেছেন এই তরুণ ইংলিশ পেসার। বল হাতে টুর্নামেন্টজুড়ে নিয়েছেন সর্বোচ্চ ১৩ উইকেট। ইংল্যান্ডকে চ্যাম্পিয়ন করার পেছনে এটা অনেক বড় একটি অবদান। যার ফলে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কারও জিতে নিয়েছেন এই তরুণ অলরাউন্ডার।

টুর্নামেন্টের সেরা বোলিং ফিগারও কারেনের। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১০ রান খরচায় ৫ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।। অবশ্য এভারেজের দিক থেকে কারেনের অবস্থান সাতে (১১.৩৮)।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –