• সোমবার   ২৮ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৯

  • || ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
গুজবে কান দিয়ে ব্যাংক থেকে টাকা না তোলার পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উন্নত বাংলাদেশ গড়তে বিজ্ঞান চর্চা বাড়াতে হবে: সমাজকল্যাণমন্ত্রী সবাইকে ডোপ টেস্টের আওতায় আনা দরকার: ডেপুটি স্পিকার শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সবাইকে কাজ করতে হবে: পরিবেশমন্ত্রী বিএনপি থেকে নিজেদের সম্পদ রক্ষা করতে হবে: এলজিআরডিমন্ত্রী

শীতে জুতা-মোজার ঘামের গন্ধ দূর করার ঘরোয়া উপায়

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২২  

শীতে জুতা-মোজার ঘামের গন্ধ দূর করার ঘরোয়া উপায়                   
মোজা পরতে অনেকেই ভালোবাসেন না। সারা বছর মোজা না পরলেও, শীতের কবল থেকে বাঁচতে মোজা না পরে উপায় নেই। কিন্তু অনেকেরই মোজা পরলে পা ঘামে। পা ঢাকা জুতার সঙ্গে মোজা পরলে ঘামে ভিজে চটচটে হয়ে যায়। 

বাড়ি ফিরলে সেই জুতা, মোজা খুলে রাখতেই কটু গন্ধে টেকা দায়। পা ধুলেও এই গন্ধ যেতে চায় না। শীতে এই সমস্যা যেন আরো বেশি করে দেখা দেয়। পায়ে ঘাম জমা হয়ে খুব দ্রুত ব্যাক্টেরিয়া ও ছত্রাক জন্মাতে শুরু করে। ফলে এর থেকে নানা রোগ হওয়ারও আশঙ্কা থেকে যায়। এর থেকে মুক্তি পাওয়ার কিছু ঘরোয়া উপায় রয়েছে।

লবণ পানি 
মোজা পরলেই পা ঘেমে যাওয়ার সমস্যা নিয়ে নাজেহাল যারা, তাদের জন্য এই উপায় হলো সেরা। বাড়ি থেকে বেরোনোর আগে ঈষদুষ্ণ লবণ পানিতে পা ডুবিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। লবণ ছত্রাক রোধ করতে সক্ষম। ফলে পা ঘামার সমস্যাকে কমিয়ে দেয় অনেকটাই। একটু সময়সাপেক্ষ হলেও পা ঘামার সমস্যা দূর করতে লবণ পানি জুড়ি নেই।

বেকিং সোডা
এর অ্যাসিটিক উপাদান পায়ে ব্যাক্টেরিয়া জন্মাতে দেয় না। ঘামকেও ঠেকিয়ে রাখে। তাই মোজা পরার আগে ভালো করে পা ধুয়ে শুকনো করে মুছে নিন। এবার সামান্য বেকিং সোডা নিয়ে ঘষে নিন পায়ের পাতায়। জুতার ভেতরেও খানিকটা বেকিং সোডা ছড়িয়ে নিতে পারেন।

ময়েশ্চারাইজার
কোথাও বেরোনোর আগে পায়ে অ্যান্টিব্যাক্টিরিয়াল উপাদান-সমৃদ্ধ কোনো ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। এতে পা খুব তাড়াতাড়ি ঘেমে যাবে না। পা শুকনো থাকলে দুর্গন্ধ বেরোনোর আশঙ্কাও অনেকটা কমে যাবে। এ ছাড়াও আলাদা করে পায়ের যত্ন নেয়া প্রয়োজন। সপ্তাহে এক-দুইবার পায়ে স্ক্রাব করুন। সুফল পাবেন।

– দৈনিক পঞ্চগড় নিউজ ডেস্ক –